চীনে উত্তর কোরিয়ার প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধের নির্দেশ

উত্তর কোরিয়ার প্রতিষ্ঠানগুলোকে চীনে কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পিয়ংইয়ংয়ের ওপর জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করতে বেইজিং এই নির্দেশ দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, এই প্রতিষ্ঠানগুলো আগামী বছরের জানুয়ারির প্রথম দিকে বন্ধ করে দেওয়া হবে। একইসঙ্গে চীন ও উত্তর কোরিয়ার যৌথ মালিকানার প্রতিষ্ঠানগুলোও বন্ধ করতে বাধ্য করা হবে।

উত্তর কোরিয়ার ঘনিষ্ঠ মিত্র চীন। রাজনৈতিকভাবে বিচ্ছিন্ন উত্তর কোরিয়ার অধিকাংশ বৈদেশিক বাণিজ্যই চীনের সঙ্গে হয়। ইতিমধ্যে দেশটির সঙ্গে পোশাক বাণিজ্য বন্ধ এবং তেল রপ্তানি সীমিত করেছে চীন।

চলতি মাসের প্রথম দিকে ষষ্ঠবারের মতো পারমাণবিক অস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালায় উত্তর কোরিয়া। এর পরিপ্রেক্ষিতে ১১ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ উত্তর কোরিয়ার ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। উত্তর কোরিয়ার ঘনিষ্ঠ মিত্র হওয়া সত্ত্বেও চীন নিরাপত্তা পরিষদের এই প্রস্তাবে ভেটো দেয়নি।

চীনের বাণিজ্য মন্ত্রনালয় জানিয়েছে, নিষেধাজ্ঞা প্রস্তাব পাস হওয়ার পর নিজেদের সীমান্তের ভেতরে থাকা উত্তর কোরিয়ার প্রতিষ্ঠানগুলোর কার্যক্রম বন্ধের জন্য তারা ১২০ দিনের সর্বোচ্চ সীমা নির্ধারণ করেছেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eight − 2 =