বিশ্বকাপের টিকিট পাইয়ে দিলো মেসি

Lionel Messiআকাশ২৪ ডেস্কঃ আর্জেন্টিনাকে রাশিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপ ফুটবলের টিকিট পাইয়ে দিলো মেসি। আর এর মাধ্যমে মেসি ভক্তরাসহ আনন্দ আর উচ্ছ্বাসে ভাসছে পুরো ফুটবল বিশ্ব। কেননা, আর্জেন্টিনা আর মেসি ছাড়া বিশ্বকাপ ফুটবল ভাবায় যায়না। রাশিয়া বিশ্বকাপের শুরু থেকেই কঠিন সময় পার করছে আর্জেন্টিনা। একের পর এক ম্যাচে ড্র করে রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকিট অনিশ্চিত করে ফেলেছিল সাম্পাউলির শিষ্যরা। আর সেই ধারাবাহিকতায় বাছাইপর্বে গত সপ্তাহের শেষ ম্যাচে পেরুর সঙ্গে ড্র করে শঙ্কাটা আরও বেড়ে যায়। পয়েন্ট টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে নেমে যায় মেসি বাহিনী। তবে শেষ পর্যন্ত অবশ্য ঘাম দিয়ে জ্বর ছেড়েছে দুবারের বিশ্বকাপজয়ীদের। অধিনায়ক মেসির দুর্দান্ত এক হ্যাটট্রিকের সুবাদে ইকুয়েডরকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে আর্জেন্টিনা। দাপুটে এই জয় দিয়ে তারা নিশ্চিত করেছে রাশিয়ার টিকেট।

ইকুয়েডরের মাঠে নামে শুরুতেই হোঁচট খায় আর্জেন্টিনা। ম্যাচ শুরুর ৪০ সেকেন্ডের মধ্যেই পিছিয়ে যায় সাম্পাউলির শিষ্যরা। ইকুয়েডরের মিডফিল্ডার রোমারিও ইবাররার আর্জেন্টিনার গোলরক্ষককে কোনাকুনি শটে পরাস্ত করে দলকে এগিয়ে দেন। আর তাতেই যেন জ্বলে ওঠেন মেসি। মেসির দুর্দান্ত নৈপুণ্যে সমতা ফেরাতে দেরি হয়নি আর্জেন্টিনার। বাঁয়ে আনহেল দি মারিয়ার বল বাড়িয়ে ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন মেসি। বল ফেরত পেয়ে প্রথম ছোঁয়াতেই বাঁ পায়ের টোকায় জালে পাঠান তিনি।
সমতায় ফেরানোর পর দলকে আবার এগিয়ে নেন জাদুকর মেসি। ডিফেন্ডারদের ভুলে বল পেয়ে যান তিনি। বল নিয়ন্ত্রণে রেখে ডি-বক্সে ঢুকে উপরের বাঁ-কোন দিয়ে কোনাকুনি শটে জালে পাঠান পাঁচবারের বর্ষসেরা এই ফুটবলার।
বিরতি থেকে ফিরে আক্রমণাত্বক খেলতে থাকে ইকুয়েডর। কিন্তু বাঁচা-মরার ম্যাচে ছাড় দিতে নারাজ টিম আর্জেন্টিনা। তাইতো ডিফেন্ডারদের ফাঁকি দিয়ে মাপা লবে গোলরক্ষকের মাথার উপর দিয়ে আবারও বল জালে জড়ালেন মেসি, করে ফেললেন হ্যাট্রিক।

argentina qualified in russia worldcup footballভাগ্য নির্ধারনী এ ম্যাচে আর্জেন্টিনার প্রথম একাদশে মাঠে নামেন সার্জিও রোমেরো, গ্যাব্রিয়েল মারকাডো, হাভিয়ের মাশ্চেরানো, নিকোলাস ওটামেন্ডি, এদুয়ার্দো সালভিয়ো, এনজো পেরেজ, লুকাস বিগলিয়া, মার্কোস একুনা, অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া, দারিয়ো বেনেদেতো এবং লিওনেল মেসি। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে কিটোর ২ হাজার ৮৫০ মিটার উচ্চতায় কিটোর এই মাঠে আর্জেন্টিনার অতীত পারফরম্যান্সও খুব একটা সুখকর ছিল না। ২০০১ সালের পর থেকে সেখানে ইকুয়েডরকে হারাতে পারেনি আর্জেন্টিনা।

সমর্থকদের অনেক দুশ্চিন্তায় রাখলেও শেষ পর্যন্ত আর্জেন্টিনা ভালোভাবেই পেরিয়ে গেছে বাছাইপর্বের বাধা। দক্ষিণ আমেরিকা থেকে ব্রাজিল তো অনেক আগেই পেয়ে গিয়েছিল বিশ্বকাপের টিকেট। আর্জেন্টিনাও শেষপর্যন্ত তৃতীয় স্থান দখল করে যোগ দিয়েছে ব্রাজিলের সঙ্গে। দ্বিতীয় ও চতুর্থ স্থানের দখল আছে উরুগুয়ে ও কলম্বিয়ার কাছে। এ চার দলই পেয়ে গেছে রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকেট। আর পঞ্চম স্থানে থাকা চিলিকে খেলতে হবে মহাদেশীয় প্লে-অফ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *