৩৬ বছর পর এশিয়ান গেমসে পদকশূন্য বাংলাদেশ

Asian Games , Bangladeshআকাশ২৪ ডেস্কঃ এশিয়ান গেমস থেকে ৩৬ বছর পর কোনো পদক ছাড়া দেশে ফিরছে বাংলাদেশ। গত ১৮ আগস্ট থেকে শুরু হয়েছিল এশিয়ান গেমস। শেষ হবে ২ সেপ্টেম্বর। তবে গেমস শেষ হওয়ার আগেই বাংলাদেশ সব ইভেন্ট শেষ করে বিদায় নিল। বহরে ছিলো ১১৭ জন! তারপরও বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন মহাসচিব শাহেদ রেজার দাবি, ব্যর্থতার পাশাপাশি কিছুটা সফলতাও পেয়েছে বাংলাদেশ। যে ডিসিপ্লিনগুলোতে ভালো করেছে অ্যাথলিটরা, সামনের দিনগুলোতে ফেডারেশন তাদের পরিচর্যা করলে, সেখান থেকে সুফল পাওয়া যাবে বলে মনে করেন তিনি। এদিকে, সম্ভাবনাময় যে ইভেন্টগুলোতে হতাশা জনক ফল এসেছে, তার দায় ফেডারেশনের ওপর চাপিয়েছেন বিওএ মহাসচিব।

১৪ টি ডিসিপ্লিনে ১১৭ জনের বহর নিয়ে এবারের এশিয়ান গেমস মিশনে নেমেছিল বাংলাদেশ। প্রায় দুই সপ্তাহের এই আসর সাঙ্গ হওয়ার পথে। এর মধ্যে ১২ ডিসিপ্লিন বাংলাদেশ শেষ করেছে পদক ছাড়া। বাকি যে দুটি রয়েছে সেখানেও নেই পদক জয়ের কোনো সম্ভাবনা।

এ তো গেলো ব্যর্থতার কথা। বিপরীতে কয়েকটি জায়গায় সফলতার দাবী জানানো যেতে পারে। এই যেমন ফুটবলে প্রথমবারের মত দ্বিতীয় পর্বে খেলা, হকির সামনের এশিয়াডের চূড়ান্ত পর্ব নিশ্চিত করা সহ আর্চারির রোমান সানার কৃতিত্ব। সব মিলিয়ে অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজার দাবি সফলতা আর ব্যর্থতা নাকি সমানে সমান।

এবারের আসরে সবচেয়ে বেশি প্রত্যাশা ছিলো কমনওয়েলথে ভালো করা শুটিং নিয়ে। এরপরই পদকের আশা ছিল নারী কাবাডিতে। তবে দুটোতেই রচিত হয়েছে হতাশার গল্প। যার দায়ভার বিওএ দিয়ে চায় ফেডারশেনকেই।

এশিয়ান গেমস, কমনওয়েলথ কিংবা সাফ। এমন আসরগুলো শেষ হওয়ার পর প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তি নিয়ে কাদা ছোড়াছুড়ি চলে উভয় পক্ষেই। তবে সেটা বাদ দিয়ে যদি এগুনো হয় সমাধানের পথে তার ফলাফলটাই বোধ হয় ইতিবাচক হবে আগামী দিনের জন্য।

এশিয়ান গেমসে বাংলাদেশ অংশ নিচ্ছে ১৯৭৮ সাল থেকে। প্রথম দুই আসরে পদকশূন্য ছিল বাংলাদেশ দল। তবে পরের প্রতিটা গেমসেই অন্তত একটি হলেও পদক জিতেছে। ১৯৮৬ সালে সিউল গেমসে লাইট হেভিওয়েটে তামা জিতেছিলেন মোশাররফ হোসেন। তার দেখানো পথ ধরে একে একে আরও ১১টি পদক জিতে বাংলাদেশ। এর মধ্যে ২০১০ সালে ক্রিকেটে সোনা জয়ের ঘটনাটিও রয়েছে। এটাই এশিয়ান গেমসে বাংলাদেশের একমাত্র সোনা। এশিয়ান গেমসে অর্জিত পদকগুলোর বেশিরভাগই এসেছে কাবাডি থেকে। এই ক্রীড়া ইভেন্টে ৭টি পদক জিতেছে বাংলাদেশ। পাঁচটি জিতেছে ছেলেরা। দুটি মেয়েরা। ক্রিকেট থেকে পদক এসেছে চারটি। ছেলেরা দুটি এবং মেয়েরা দুটি। ১৯৮৬ সাল থেকে ২০০৬ পর্যন্ত প্রতি গেমসেই একটি করে পদক জিতেছে বাংলাদেশ। ২০১০ ও ২০১৪ সালে তিনটি করে পদক জিতে লাল-সবুজের পতাকাবাহীরা। দীর্ঘদিন ধরেই পদক জয়ের ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছিল বাংলাদেশ। এবার ১১৭ জন অ্যাথলেট নিয়েও শূন্য হাতে ফিরতে হলো বাংলাদেশকে।

এবারের এশিয়ান গেমসে ৪৫টি দেশের ১১ হাজার ৭২০ জন অ্যাথলেট অংশ নিয়েছে ৪০টি ডিসিপ্লিনের ৪৬৫টি ইভেন্টে। ৪৫টি দেশের মধ্যে ৩৭টি দেশই কোনো না কোনো ইভেন্টে পদক জয় করেছে। পদক জয়ের তালিকায় শীর্ষে আছে চীন। তারা ১০০টি সোনাসহ ২১৪টি পদক জয় করেছে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 + 17 =